রাজাপুরে ছাত্রের হাত ভাঙল শিক্ষক

0
74

রাজাপুর উপজেলায় এক প্রাথমিক শিক্ষকের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রকে পিটিয়ে হাত ভেঙে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার ১৪নং নারিকেলবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক উত্তম সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ছাত্র মোঃ সৈকতকে পিটিয়ে তার ডান হাত ভেঙে দিয়েছেন। রোববার সকালে শিশু সৈকত, তার বড় ভাই শাওন ও তার মা শামসুন্নাহার বেগম শিল্পী রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবে লিখিত অভিযোগ উপস্থাপন করেন। 
উপজেলার নারিকেলবাড়িয়া গ্রামের কৃষক জাহিদুল ইসলাম পান্নার ছেলে সৈকত। তার বড় ভাই মোঃ রিফাত আহম্মেদ শাওন স্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগে দাবি করা হয়, ২ এপ্রিল স্কুল ছুটি হলে ছাত্ররা ছোটাছুটি শুরু করে। এ সময় শিক্ষক উত্তম বেত দিয়ে শিশুদের এলোপাতাড়ি পিটুনি দেন। এতে সৈকত ডান হাতে গুরুতর আঘাত পায়। তার হাতের কনুইয়ের জোড়ার হাড় ভেঙে রক্তাক্ত হয়ে যায়। খবর পেয়ে অভিভাবকরা এ ঘটনার কারণ জানতে চাইলে শিক্ষক উত্তম ও শিক্ষক আয়শা বেগম অসৌজন্যমূলক আচরণ ও দুর্ব্যবহার করেন। বর্তমানে ওই ছাত্রের পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে। এ অভিযোগ অস্বীকার করে শিক্ষক উত্তম জানান, পিটুনিতে সৈকতের হাত ভাঙেনি, পড়ে গিয়ে তার হাত ভেঙেছে। এছাড়া এ বিষয়টি তো মীমাংসা হয়ে গেছে। ইউএনও আফরোজা বেগম পারুল জানান, খোঁজ নিয়ে দেখছি, অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Comments

comments

SHARE