মধ্য প্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব দিয়েই শুরু হতে চলেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড প্রথম বিদেশ সফর।

0
258

মধ্য প্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব
দিয়েই শুরু হতে চলেছে মার্কিন
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড প্রথম বিদেশ
সফর। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি
হিসেবে প্রথমে সৌদি আরবে যাবেন
ট্রাম্প। এরপরে ইসরায়েল এবং
ভ্যাটিক্যান সিটিতেও যাওয়ার কথা
রয়েছে ট্রাম্পের।
নিজের বিদেশ সফর নিয়ে উচ্ছ্বসিত
ট্রাম্প। ধর্মীয় সংগঠনগুলির জন্য কর
কমানোর বিষয়ে এক আদেশ জারি
উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে
ট্রাম্প তাঁর সফরের কথা ঘোষণা
করেন।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, শান্তির
চাবিকাঠি আছে সহিষ্ণুতার মধ্যেই।
আমার এই সফর শুরু হবে সৌদি আরবে
ঐতিহাসিক এক সম্মেলনে যোগ
দেওয়ার মধ্য দিয়ে। যেখানে মুসলিম
বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা
আসবেন। উগ্রবাদী, সন্ত্রাস আর
হিংসার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমাদের
মুসলিম মিত্রদের সঙ্গে সহযোগিতার
নতুন ভিত্তি তৈরির কাজ শুরু হবে
সেখানে।
ট্রাম্প আরও বলেন, কাদের কীভাবে
চলা উচিত সেটা নিয়ে কথা বলা
আমাদের কাজ নয়। বরং সেই
মিত্রদের সঙ্গে, অংশীদারদের
সঙ্গে আমাদের জোট বাঁধতে হবে,
যারা সন্ত্রাসবাদকে পরাজিত করে
আরব দুনিয়ায় স্থিতিশীলতা ও
নিরাপত্তা আনার বিষয়ে আমাদের
সঙ্গে সহমত পোষণ করে।
জানা গেছে, সৌদি আরব দিয়ে সফর
শুরুর পর ২৫ মে ব্রাসেলসে ন্যাটো
সম্মেলনে যোগ দেওয়ার আগে
ভ্যাটিকানে যাবেন ট্রাম্প। ২৪ মে
পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে তার বৈঠক
হতে পারে।মধ্য প্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব
দিয়েই শুরু হতে চলেছে মার্কিন
প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড প্রথম বিদেশ
সফর। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি
হিসেবে প্রথমে সৌদি আরবে যাবেন
ট্রাম্প। এরপরে ইসরায়েল এবং
ভ্যাটিক্যান সিটিতেও যাওয়ার কথা
রয়েছে ট্রাম্পের।
নিজের বিদেশ সফর নিয়ে উচ্ছ্বসিত
ট্রাম্প। ধর্মীয় সংগঠনগুলির জন্য কর
কমানোর বিষয়ে এক আদেশ জারি
উপলক্ষে বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে
ট্রাম্প তাঁর সফরের কথা ঘোষণা
করেন।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, শান্তির
চাবিকাঠি আছে সহিষ্ণুতার মধ্যেই।
আমার এই সফর শুরু হবে সৌদি আরবে
ঐতিহাসিক এক সম্মেলনে যোগ
দেওয়ার মধ্য দিয়ে। যেখানে মুসলিম
বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা
আসবেন। উগ্রবাদী, সন্ত্রাস আর
হিংসার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমাদের
মুসলিম মিত্রদের সঙ্গে সহযোগিতার
নতুন ভিত্তি তৈরির কাজ শুরু হবে
সেখানে।
ট্রাম্প আরও বলেন, কাদের কীভাবে
চলা উচিত সেটা নিয়ে কথা বলা
আমাদের কাজ নয়। বরং সেই
মিত্রদের সঙ্গে, অংশীদারদের
সঙ্গে আমাদের জোট বাঁধতে হবে,
যারা সন্ত্রাসবাদকে পরাজিত করে
আরব দুনিয়ায় স্থিতিশীলতা ও
নিরাপত্তা আনার বিষয়ে আমাদের
সঙ্গে সহমত পোষণ করে।
জানা গেছে, সৌদি আরব দিয়ে সফর
শুরুর পর ২৫ মে ব্রাসেলসে ন্যাটো
সম্মেলনে যোগ দেওয়ার আগে
ভ্যাটিকানে যাবেন ট্রাম্প। ২৪ মে
পোপ ফ্রান্সিসের সঙ্গে তার বৈঠক
হতে পারে।

Comments

comments

SHARE