ফরিদপুরে হত্যাকান্ডের তিনদিন পর মামলা দায়ের

0
120

ফরিদপুরের ঈশান গোপালপুর ইউনিয়নের মৃত মনছের খার স্ত্রী সূর্য খাতুন হত্যাকান্ডের তিনদিন পর অবশেষে মামলা দায়ের করা হয়েছে থানায়। আজ রোববার দুপুরে নিহতের ছোট ছেলে সহিদ শেখ বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদেরও বিরুদ্ধে এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়, পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত করে লাশ গুম করার চেষ্টা চালানো হয়।

মামলার আরজিতে সহিদ শেখ উল্লেখ করেন, গত মঙ্গলবার সন্ধায় ফরিদপুর ডায়বেটিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্বজনকে দেখতে এসে হত্যার শিকার হন। এরপর শুক্রবার সকালে গলিত লাশ উদ্ধার হয়। কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় তার মা সূর্য খাতুনের মৃত্যু নিশ্চিত হয় বলে সহিদ শেখ উল্লেখ করেন।সূর্য খাতুন হত্যাকান্ডে মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে কোতয়ালী থানার এসআই বিপুল জানান, হত্যা মোটিভ উদ্ধারে জোর তদন্ত চলছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এলে বিষয়টি অনেক পরিস্কার হবে।ফরিদপুর ডায়বেটিক হাসপাতালের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুস সামাদ জানান, বিষয়টি তদন্তে ফরিদপুর ডায়বেটিক সমিতি মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. জহিরুল ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যেও তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী বুহস্পতিবার তদন্ত কমিটি রিপোর্ট দেবে।

এদিকে, বিষয়টি জানতে সরেজমিনে ডায়বেটিক হাসপাতালে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নানা অব্যবস্থাপনার চিত্র পাওয়া যায়। বিশেষত: ইতিপূর্বে এ হাসপাতালে হত্যা, চুরি ও নানা অসামাজিক কর্মকান্ডের একাধিক ঘটনা ঘটেচে। প্রতিটি ঘটনার তথ্য প্রমাণ থাকার পরেও প্রতিটি বিষয়গুলো পরবর্তীতে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালানো হয়। একারণে অপরাধীরা দিনদিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। এছাড়া হাসপাতালের রোগীদের নিরাপত্তায় কর্তৃপক্ষের যথাযথ ব্যবস্থা নেই। সূর্য খাতুন হত্যার দিন সিসি ক্যামেরা বন্ধ থাকার বিষয়টিও জনমনে রহস্য জন্ম দিয়েছে।

 

Comments

comments

SHARE